An infographic showing how courses and levels work for children and teenagers

আমাদের লক্ষ্য

আমরা শিক্ষার্থীদের ইংরেজি শিক্ষার জন্য একটি উচ্চমানসম্পন্ন কর্মসূচি উপহার দিতে চাই। এর মাধ্যমে তারা একটি আনন্দময় এবং নিরাপদ পরিবেশে ইংরেজি শিক্ষার পাঠ লাভ করতে পারবে।

আমাদের শিক্ষাদান পদ্ধতি

আমরা বিশ্বাস করি, শিক্ষার্থীরা তখনই সবচেয়ে ভালোভাবে শিখতে পারে যখন তারা তাদের পাঠ্য বিষয়ের মাঝে আগ্রহ ও অনুপ্রেরণা খুঁজে পায়। পাঠ্য বিষয়টিকে একটু নতুন ও চ্যালেঞ্জিং-ভাবে উপস্থাপন করা হলে শিক্ষার্থীরা সহজেই তাতে আগ্রহী হয়। আমরা জানি যে প্রতিটি শিক্ষার্থীর শেখার গতি অন্যদের থেকে আলাদা, তাই আমরা প্রতিটি শিক্ষার্থীর প্রাথমিক অবস্থা ও শেখার গতি বিবেচনা করেই তার জন্য পাঠ্যসূচি নির্ধারণ করে থাকি। আমাদের শিক্ষকেরা বিভিন্ন বয়সী শিক্ষার্থীদের কথা মাথায় রেখেই বয়সোপযোগী নানা পদ্ধতি প্রয়োগ করে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকেন, যেন শিক্ষার্থীরা এর সর্বোচ্চ সুফল লাভ করতে পারে।

আমরা চাই যে আমাদের শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষা কার্যক্রমে নিজেরাও অংশ নিক এবং প্রতিমুহূর্তে নিজেদের অগ্রগতি যাচাই করুক। ভাষাগত অন্যান্য দক্ষতাসহ ইংরেজি বলতে আমরা শিক্ষার্থীদেরকে বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকি, যাতে ভবিষ্যতে পড়াশোনা, কর্মক্ষেত্র বা সামাজিক যোগাযোগে্র ক্ষেত্রেও এই দক্ষতা তারা কাজে লাগাতে পারে।

শিশু (৫-১১ বছর)

এই বয়সী শিশুরা সুশৃঙ্খল ক্লাস রুটিন থেকে উপকৃত হয় এবং অধিক সময় ক্লাসরুমে মনোযোগ ধরে রাখতে পারে। এই বয়সী শিক্ষার্থীরা, ভাষায় তাদের প্রথম পাঠ গ্রহণ করছে তাই তাদের পাঠ্যক্রমও সতর্কভাবে নির্বাচন করা হয়।

শিশুদের কোর্সে আমাদের শিক্ষার্থীরা:

  • শিশুদের উপযোগী এবং মজাদার বিষয়ের উপর পাঠ লাভ করে এবং পঠিত বিষয়গুলো নিজেদের বাস্তব অভিজ্ঞতার সাথে মিলিয়ে নিতে পারে।
  • ইংরেজি ভাষায় নিজেদের দক্ষতা এবং আগ্রহ বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়।
  • ভাষা ব্যবহারের নানাবিধ দক্ষতা অর্জন করে।
  •  বাস্তব জীবনের নানা পরিস্থিতির সাথে মিলিয়ে তৈরি করা কর্মসূচি থেকে ভাষার ব্যবহা্রিক দক্ষতা অর্জন করে।
  • বিশ্বের নানাবিধ বিষয় সম্পর্কে জানবার সুযোগ পায়।
  • আদর্শ আচরণ ও মানবিক মূল্যবোধের শিক্ষা পায় এবং গভীরভাবে চিন্তা করবার ও সমস্যা সমাধানের দক্ষতা অর্জন করে।

আমার সন্তান কী শিখতে পারবে?

শিশুদের নিজ নিজ গতি অনুযায়ী তারা নিজেদের পরিচয় দেওয়া, কথা বুঝতে পারা, পোস্টকার্ড লেখা, সুন্দরভাবে কোনোকিছু চাওয়া- এগুলো শিখতে পারবে। শিশুদের জন্য উপযোগী ও আকর্ষণীয় নানা বিষয় সম্বন্ধে তারা জানতে পারবে, যেমন- পশুপাখি ও ভ্রমণবৃত্তান্ত।

কিশোর-কিশোরী (১২-১৭ বছর)

কিশোর-কিশোরীদের কোর্সে আমাদের শিক্ষার্থীরা যা পাবে:

  • ভাষা ব্যবহারের সকল দক্ষতা যেমন- শ্রবণ, পঠন ও লিখনে যথাযথ প্রশিক্ষণ লাভ করবে।
  • ইংরেজিতে বর্তমান দক্ষতার আরো উন্নতি সাধন করতে পারবে।
  • বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারবে, যেমন- সাক্ষাৎকার নেওয়া, জরিপ করা, প্রেজেন্টেশন দেওয়া, কোনো বইয়ের পর্যালোচনা লেখা ইত্যাদি। এসব কর্মসূচির মাধ্যমে তারা ইংরেজি ভাষার যথাযথ ব্যবহার শিখতে পারবে।
  • পড়াশোনা সংক্রান্ত নানা প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জন করতে পারবে, যেমন- নোট নেওয়া, পড়ার বিষয়বস্তু মনে রাখা, বিষয়বস্তু যথাযথভাবে সাজিয়ে ও সুশৃঙ্খলভাবে পড়া, সময় ব্যবস্থাপনা করা ও যথাযথভাবে পড়া ইত্যাদি।
  • প্রয়োজনীয় উপকরণ যেমন- কোর্স সংক্রান্ত বইপত্র, ভিডিও, ট্যাবলেট কম্পিউটার, আধুনিক হোয়াইটবোর্ড ইত্যাদি ব্যবহার করে পড়াশোনা করা।
  • পুরো ক্লাস এর সাথে যুগ্ন, দলীয় বা আলাদাভাবে নানা কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া, যার মাধ্যমে শিক্ষার্থীর সামাজিক দক্ষতা ও আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পাবে।

আমার সন্তান কী শিখতে পারবে?

শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ গতি অনুযায়ী নিজেদের নির্দেশনা দেওয়া,দরখাস্ত লেখা,রেস্টুরেন্টে অর্ডার দেওয়া, টেলিভিশনে খবর শোনা- এগুলো শিখতে পারবে। কিশোর-কিশোরীদের জন্য উপযোগী ও আকর্ষণীয় নানা বিষয় সম্বন্ধে তারা জানতে পারবে, যেমন- খেলাধুলা ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইত্যাদি।

আরও দেখুন